বড় হয়ে কী হতে চাও – এই প্রশ্নের উত্তর কবে বদলাবে সে অপেক্ষায় আছি

ছোটবেলা থেকেই আমার ইলেক্ট্রিক যন্ত্রপাতির প্রতি একটা আলাদা টান ছিল , বাসায় টিভি, রেডিও এবং বিশেষ করে আব্বার ক্যালকুলেটরের উপর যে কী পরিমান অত্যাচার করেছি সেটার স্মৃতি আম্মা মাঝে মাঝেই রূমন্হন করেন । একটা সময়ে পাম্প টাইপ মেশিন গুলোর প্রতিও ব্যাপক আগ্রহ ছিল । আব্বার চাকুরীসুত্রে ছেলেবেলা সরকারী কোয়ার্টারেই কেটেছে , এমনও হয়েছে পড়াশোনা , স্কুল বাদ দিয়ে কোয়ার্টারের পানির পাম্পের কাছে গিয়ে বসে থেকেছি জিনিসগুলো দেখার জন্য । চুম্বক – কিংবা মোটর কেনার জন্য কত বায়না ধরেছি । কিন্তু আমার আব্বা-আম্মা সবসময়ই বিষয়গুলো ভয়ের চোখে দেখতেন – কখন এক্সিডেন্ট করি ! তাই যখনই কেউ জিজ্ঞেস করতে বড় হয়ে কী হতে চাই তখন বিনা দ্বিধায় বলতাম – ম্যাকানিক হব । ম্যাকানিক হলে এসব নিয়েই তো দিন কাটবে । আব্বা অবশ্য শুধরে দিতেন , বলতেন – আমার ছেলে হবে ইন্জিনিয়ার !

বড় হয়ে যখন চারপাশের মানুষজন, তাদের ভাবনা-চিন্তার সাথে পরিচয় হওয়া শুরু হল তখন দেখলাম অনেকেরই ভাবনা চিন্তা আমার মতই । আমি যদিও ম্যাকানিক দিয়ে শুরু করেছিলাম , অনেকেই একেবারে শুরু থেকে ডাক্তার কিংবা ইন্জিনিয়ার হবার শখ । বিষয়টা নিয়ে বেশ আহ্লাদিতই ছিলাম বলতে পারেন , আমার বন্ধুরা যদি সবাই ডাক্তার ইন্জিনিয়ার হতে পারে তবে তো খুব মজা ।

ক্লাশ এইট পর্যন্ত বিষয়গুলোর কোন পরিবর্তন দেখিনি , ক্লাশ নাইনে যখন সায়েন্স , আর্টস কিংবা কমার্সের বিষয়গুলো চলে এলো তখন আরো দুটো নতুন “হতে চাই” এর সন্ধান পেলাম – ১. ম্যানেজার কিংবা ব্যাংকার ২.আইনজীবি কিংবা জজ । তখনও দেশ নিয়ে , কিংবা দশ নিয়ে ভাবনাটা মাথায় ছিল না । আর থাকবেই বা কেনো বলেন ? বাবার সংসারে খাচ্ছি -দাচ্ছি , বেশ দিন কেটে যাচ্ছে । কোথায় কোন মাথা মোটা মন্ত্রী উল্টা-পাল্টা সিদ্ধান্ত নিল আর কোথায় কে দেশ বেচে খেল সেটা নিয়ে আমাদের কী মাথাব্যাথা ? বড় জোড় আড্ডায় দুই-একটা কথা , তার বেশি কিছু কখনই হয়নি । তখন বুঝিনি দেশের জন্য ডাক্তার – ইন্জিনিয়ার – ব্যাংকার – আইনজীবি কিংবা ম্যানেজারএর চেয়েও আরো বড় কিছুর দরকার আছে ।

মাহাথির মোহাম্মদের কথা প্রথম জানতে পারি ক্লাস এইটে , আমাদের এক স্যার ( সামাজিক বিজ্ঞান স্যার মনে হয় ) তার কথা গল্প করেছিলেন । বেশি কিছু বলেন নি অবশ্য , তবে “আমাদের একজন মাহাথির মোহাম্মদ দরকার” এই কথাটা বেশ কবার বলেছিলেন । এই কথাটা অবশ্য এখন প্রায়ই শুনি , ইন্টারনেট , টিভি, সংবাদপত্র সবখানে ! মাহাথির মোহাম্মদ বড় হয়ে কী হতে চেয়েছিলেন আমার জানা নেই তবে থাইল্যান্ডের বর্তমান প্রধানমন্ত্রী ইংলাক সিনাওয়াত্রা বড় হয়ে প্রধানমন্ত্রী হতে চেয়েছিলেন – আমি নিশ্চিত ।

ভার্সিটিতে ভর্তি হবার পর অনেক বড় ভাইদের কাজ দেখে আমি মুগ্ধ , ভাল কাজ করার স্পিরিট , সংগঠন ক্ষমতা এবং দক্ষতা ঈর্ষণীয় । মাঝে মাঝে এই ভাবনাটা আমাকে খুব পীড়া দেয় – এইসব মেধা , এইসব দক্ষতা , লীড করার ক্ষমতাটা হয়ত একটা বেসরকারী কোম্পানীকে অনেক অনেক লাভের মুখ দেখাবে , ভীন কোন দেশকে আরো সমৃদ্ধ করবে , উন্নতির আরো শিখরে পৌছে দেবে । অথবা দেশের সরকারী কোন প্রতিষ্ঠানে দুর্নীতিবাজদের মাঝে পড়ে কুড়ে কুড়ে প্রতিভা গুলো , ক্ষমতাগুলো নষ্ট হবে ।

এতো দিনের অভিজ্ঞতায় একটা জিনিস একদম জলের মত স্বচ্ছ – সব ক্ষমতা আসলে প্রধানমন্ত্রীর হাতে , দেশের নেতৃত্বের হাতে । মাঝে মাঝে মনে হয় কোন ভাবে যদি কলুষিত ( তথাকথিত ) ছাত্র রাজনীতিবিদের যায়গায় এইসব ভালো চিন্তার মানুষদের বসানো যেত ! কোনভাবে যদি দেশের ক্ষমতা স্মার্ট এইসব মানুষদের হাতে তুলে দেয়া যেত ! এই সব ভাল মানুষদের থেকে যদি একজনকে প্রধানমন্ত্রী হিসেবে পেতাম ! কত ভালই না হত তাহলে ।

আমাদের মধ্যবিত্ত সমাজ সবসময়ই সেফ সাইডে থাকতে চায় , ছেলেকে ডাক্তার ইন্জিনিয়ার হিসেবে দেখতে চায় – তাই কোন পরিবারের ইচ্ছায় কেউ দেশের সেবার ঝাপিয়ে পড়বে সে আশা আমি করি না । তবে সবসময়ই মনের ভেতর আশা পুষে রাখি সেই দিন নিশ্চয়ই আসবে যেদিন কেউ একজন মনেপ্রানে নেতা হয়েই জন্মাবে – যে ( যারা ) বড় হয়ে কী হতে চাও এর উত্তরে লিখবে – বড় হয়ে আমি নেতা হতে চাই , দেশের সেবা করতে চাই ।

সেই মনে-প্রাণে দেশপ্রেমিক কাজে-কর্মে স্মার্ট নেতার অপেক্ষায় আছি ।

Advertisements

16 comments on “বড় হয়ে কী হতে চাও – এই প্রশ্নের উত্তর কবে বদলাবে সে অপেক্ষায় আছি

  1. dihan91 বলেছেন:

    শেয়ার না করে পারলাম না। আমি বড় হয়ে চাইতাম এমন কিছু হতে যেন দেশের ভাল হয়। এখন কচু করছি। সবাই সেইফ সাইড পন্থী।

    • Jamal Uddin বলেছেন:

      কী আর করা ভাই বল , মধ্যবিত্তের কপাল … সেইফ সাইডে ভাবা ছাড়া আসলে উপায়ও নাই , কে না চায় তার ছেলে-মেয়ে সুখে থাকুক ? তবে সুখ যে কোথায় …

      শেয়ার করার জন্য ধন্যবাদ ।

  2. ?জাকির! বলেছেন:

    যখন বুঝতে পারছি আমার মধ্যে কোন নেতৃত্তের গুন নেই তখন থেকে নিজেকে খুব ছোট লাগতো… সবার মত আমি চাইতাম বড় হচ্ছে ডাক্তার/ইঞ্জিনিয়ার হবার, নেতার প্রয়জনীয়তা বুঝতাম না।
    লেখাটা অনেক ভালো লাগলো…

    • Jamal Uddin বলেছেন:

      এই গুনাবলিগুলো আসলে অনেক ছোটবেলা থেকেই ডেভেলপ করা উচিত । আমাদের বাবা-মায়েরা কোন কারনে বাচ্চাদের এসব থেকে দূরে রাখেন আর স্কুল কলেজের যেসব কার্যক্রম এই গুনাবলির সহায়ক ( যেমন বিতর্ক , খেলাধুলা ) সেসবের চর্চাও অনেক কমে গেছে এবং দিনকে দিন আরো কমছে । তাই নিজেকে ছোট মনে করবেন না , প্রত্যেকটা মানুষ একটা সম্পদের মত ।

      আমরা আমাদের পরবর্তী প্রজন্মকে যদি এই বিষয়গুলো সম্পর্কে ভালো ধারনা দিতে পারি তবে আমি নিশ্চিত তারা স্মার্ট হয়েই গড়ে উঠবে ।
      ভাল থাকুন ।

  3. Hasinul Islam (@anonrock) বলেছেন:

    খুব চমৎকার লিখেছেন ভাই 🙂

  4. রিং বলেছেন:

    খুব সুন্দর একটা লেখা। খুব ভালো লাগলো। তবে আমার হিসেব একটু আলাদা। আমি উন্নত কারো সাথে সরাসরি নিজেকে তুলনা করি আর নিজেকে উন্নত করতে চাই। যদি এভাবে আমি ও আমার চারপাশ উন্নত করতে পারি তো সময়ের পরিক্রমায় একসময় সবকিছুই উন্নত হবে। কোন রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের প্রয়োজন পড়বে না।

    • Jamal Uddin বলেছেন:

      রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বের দরকার হবে না কথাটা মানতে পারলাম না । আমি একটা দীর্ঘ সময় সরকারের অধীনে কাজ করা লোকজনের সাথে কাটিয়েছি , সেখানে ভালো মানুষের (ভালো কাজ করতে চান অর্থে) অভাব নেই , কিন্তু সমস্যা একটাই উপরের চাপ । একটা ছোট উদাহরন দেই , অক্সিজেন এবং হাইড্রোজেন দুইটাই বেশ সক্রিয় পদার্থ । বছরের পর বছর একসাথে রেখে দিলেও আপনি একফোঁটা পানি পাবেন না , কিন্তু সূর্যের আলোতে রাখলে সাথে সাথে বিক্রিয়ায় পানি পাবেন । নেতাদের ভুমিকাকে আমি এই প্রভাবকের মত করেই দেখি ।

      আপনি আপনার আশেপাশের আর দশটা মানুষকে জিজ্ঞেস করে দেখুন বেশীরভাগ মানুষকেই নিজের চারপাশ উন্নত করার প্রতি সচেষ্ট পাবেন । এই সব ভালকাজগুলোর যদি কম্বিনেশন করা যায় , একটা প্লাটফরম থেকে করা যায় তবেই অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছানো সম্ভব বলে আমার মনে হয় – সেই একীভুত করার কাজটুকুর জন্য নেতা লাগবেই ।

  5. খুব ভালো লাগল পোস্টটা।

    “আমি একটা দীর্ঘ সময় সরকারের অধীনে কাজ করা লোকজনের সাথে কাটিয়েছি , সেখানে ভালো মানুষের (ভালো কাজ করতে চান অর্থে) অভাব নেই , কিন্তু সমস্যা একটাই উপরের চাপ।”

    আমিও আপনার এই কথাটার সাথে একমত।

  6. tusin বলেছেন:

    আপনার এই কথাটার সাথে আমি সহমত
    ” এই সব ভালকাজগুলোর যদি কম্বিনেশন করা যায় , একটা প্লাটফরম থেকে করা যায় তবেই অভীষ্ট লক্ষ্যে পৌঁছানো সম্ভব বলে আমার মনে হয় – সেই একীভুত করার কাজটুকুর জন্য নেতা লাগবেই ।”
    আর হ্যাল লেখাটা ভাল হয়েছে…….

  7. K M Hassan বলেছেন:

    আমরা সবাই যদি আমাদের নিজেদের কাজটা ভালো ভাবে করি তাহলে কিন্ত‍ু অনেক কিছুই বদলে যাবে। ভালোভাবে দ্বায়িত্ব পালন করাটাই তো দেশের কাজ। পৃথিবীর যে সব দেশগুলো উন্নত হয়েছে তারাও ঠিক তাই, বেশীর ভাগ মানুষ সেখানে তাদের যেটা কাজ সেটা ভালো ভাবে করে। আমার মনে হয় না কোন নেতার অপেক্ষা করতে হবে। দেশের মানুষের মানসিকতার পরির্বতন না হলে দেশ বদলাতে কোন নেতাই পারবেনা। একজন যখন ঘুষ খায়, তারা টাকাটা নিয়ে কোথায় আসে, তাদের পরিবারের কাছে, এই টাকাটা সেই পরিবার ব্যবহার করছে..তারা কি একবারো জানতে চাইছে কোথা থেকে এসব হচ্ছে…। কাজে ফাকি দেয়া, দায়িত্বে অবহেলা, অলসতা এগুলো কোন নেতার পক্ষে ঠিক করা সম্ভব না… পরিবর্তন না আসতে হবে ভিতর থেকে। সে রকম নেতার জন্মাবার পরিবেশতো দিতে হবে। আমরা কোন কাজেই মেধার মুল্যায়ণ করিনা, বরং কিভাবে সেই মেধার র্সবনাশ করা যায় সেটার ব্যবস্থা করি। সেই দেশে মেধা বিকশিত হবে কি করে?

    এই চমৎকার লেখাটা দেখে মন্তব্য করে ফেললাম। আমার সেই ১৯৯৭ থেকে ২০০৭ সরকারী চাকুরীর অভিজ্ঞতা বলে সমস্যা অন্য জায়গায়।

    শৃভেচ্ছা…

    • Jamal Uddin বলেছেন:

      অনেক অনেক ধন্যবাদ আপনার মন্তব্যের জন্য । আসলে কোন কিছু হবার ব্যাপারে ধারণা আলাদা হতে পারে তবে আমাদের সবাই একটা পয়েন্টে কিন্তু একরকমই চিন্তা করছি – সেটা হল আমাদের নিজেদের বদলাতে হবে । এর পয়েন্টটাতে এসে অনেকের অনেক রকম মতামত আছে , থাকবে – তবে আমার কাছে মনে হয়েছে এই যে মানসিক পরিবর্তন , চিন্তাধারার পরিবর্তন করার কথা বলা হচ্ছে সেটা করার জন্য একটা গাইডেন্স খুবই জরুরি ।
      ব্যাপার না , আমরা সবগুলোই একসাথে চেষ্টা করে দেখি না 🙂 আমরা চেষ্টা করলাম আমাদের মানসিকতা উন্নত করতে , একজন ভালো নেতা আমাদের পথ দেখালো , একত্রিত করল – ইসস ! করা সম্ভব হলে বাংলাদেশ পৃথিবীর সবচেয়ে সুন্দর দেশ হবার ক্ষমতা রাখে ।

      ভাল থাকবেন ।

  8. SaMira MuSleh বলেছেন:

    অনেক অনেক ভাল লেগেছে লেখাটা।
    আসলেই, আমরা যে হারে দেশের সমস্যাগুলো নিয়ে অভিযোগ করি কিংবা নেতাদের দোষ ধরি; সে হারে নিজেরা পরিবর্তন আনার জন্য সক্রিয় হওয়ার কথা ভাবি না। কথায় কথায় বলি, এই দেশের রাজনীতি ভাল মানুষদের জন্য না, অথচ ভাল মানুষ রাজনীতিতে না গেলে পরিবর্তন আসবে কোথা থেকে?
    তবে আজকাল আশাবাদী হচ্ছি একটু একটু করে, ওরকম নেতা আমরাও পাব ইনশাআল্লাহ্‌! 🙂

  9. সোহাগ বলেছেন:

    অনেক সুন্দর হয়েছে লেখাটা। কিছুটা আমার জীবনের সাথে ও মিলেছে,
    আমার ফিউচার প্ল্যান চক্র-
    ডাক্তার > ইলেক্ট্রিক ইঞ্জিনিয়ার > কম্পিউটার ইঞ্জিনিয়ার > বিস্‌নেস
    জনপ্রিয় বিজ্ঞানী নামে স্কুল এবং কলেজে।
    এডুকেশন ব্যাকগ্রাউন্ড কমার্স।
    জটিল…

মন্তব্য করুন

Fill in your details below or click an icon to log in:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / পরিবর্তন )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / পরিবর্তন )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / পরিবর্তন )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / পরিবর্তন )

Connecting to %s