একুশের কিংবা বসন্তের কিংবা “কিছু একটার” হাহাকার !

হাহাকার শব্দটা যা বোঝায় সেটা বোধহয় একদম রক্তে মিশে থাকা একটা বিষয় । আমরা ভাবতে পছন্দ করি আমাদের চারপাশে শুধু হাহাকার আর হাহাকার ! পানির জন্য হাহাকার, বিদ্যুতের জন্য হাহাকার কিংবা শেয়ার বাজারের জন্য হাহাকার, জিপি ইন্টারনেটে স্পিডের জন্য হাহাকার, একটা ভাল নেতার জন্য হাহাকার ! আমেরিকানদের শান্তি শান্তি বলে হাহাকার, আফগানিস্থান, ইরাকে মানবতার জন্য হাহাকার ।  আমাদের আদি-পিতা-মাতা যখন স্বর্গে ছিলেন তখন নাকি কিছু একটা নেই, কিছু একটা নেই বলে হাহাকার করতেন । ধর্ম বলে মানুষ যখন স্বর্গে যাবে তখন আল্লাহকে না দেখা পর্যন্ত নাকি হাহাকার কাটবে না ।

বিস্তারিত পড়ুন

Advertisements

ঘুরে আসলাম প্রানের মেলা থেকে , একুশে বইমেলা ২০১০

ঢাকায় ভর্‌তি হলেও আমার আপাতত কোন থাকার যায়গা নেই , কোন আত্নীয় নেই । কিন্তু আমার একজন খালা আছেন । বাহ্যিক ভাবে হয়ত আমার বন্ধুর খালা হতে পারেন , কিন্তু কখনও আমার তা মনে হয়না । যাক সে কথা , আমি আসছি শুনে খালা বললেন চলে আসতে বাসায় । আমিও আর না করতে পারলাম না । বাস থেকে নেমেই সোজা খালার বাসায় । তিন দিন ছিলাম সেখানে , ২৩-২৪-২৫ তারিখ । কদিন ইন্টারনেট নেই তাও বলতে হবে চমতকার কেটেছে ।

২৩ ফেব্রুয়ারীঃ দুপুর ১১ টার দিকে রওনা দিয়ে ঢাকা আসলাম ৩ টার দিকে । আর খালায় বাসায় ঠিক ৩.৩০ এ । আমার বন্ধু ড্যাফোডিলে পড়ে । পরের দিন তার একটা পারফর্‌ম ছিলো । তার কাজ সেরে সে আসে ৪ টার দিকে । সন্ধ্যা ৭ টায় বের হলাম । সাথে নিয়ে এসেছিলাম ৫০০ টাকা । কিন্তু বইমেলা ঘুরে যে বইই দেখি সেই বই ই পছন্দ হয় । সেই সন্ধ্যায় বই কিনে ফেললাম ৮০০ টাকার – ৩০০ টাকা ধার করে । রাত বলে স্টল গুলো কিভাবে সাজানো বুঝতে পারছিলাম না । সেই রাতে ঘুরাঘুরিই বেশী হল , বই কেনাও কম না !

বিস্তারিত পড়ুন